ম্যারেজ মিডিয়া ( বিয়েরছোঁয়া.কম )

উচ্চ শিক্ষা শেষে প্রতিষ্ঠিত হবার পরেও যদি আপনি অথবা আপনার পরিবারের কোন সদস্য উপযুক্ত সঙ্গীর সন্ধান না পাওয়ায় কারনে বিয়ের ব্যাপারে সিদ্ধান্তহীনতায় ভোগে থাকেন তবে আপনার জন্যই অনলাইন বেইজ ম্যাট্রিমনিয়াল সার্ভিস বিয়েরছোঁয়া ডট কম। এখানে অনলাইনে ফ্রী রেজিষ্ট্রেশন করে ঘরে বসেই আপনি চাহিদা অনুযায়ী পাত্র/পাত্রীদের প্রোফাইল (ছবি সহ বায়োডাটা) দেখে পাত্র/পাত্রী কিংবা তাদের অভিভাবকের সাথে সরাসরি নিজেরাই যোগাযোগ করতে সক্ষম হবেন এবং তা অতি দ্রুততম সময়ের মধ্যে। আপনার শতভাগ সেবা নিশ্চিত করতে  ২৪ ঘন্টা ৭ দিনই প্রস্তুত আছে। এ সেবাটি সম্পূর্ন অনলাইন বেইজ এবং শত ভাগ সেলফ সার্ভিস। অনলাইনে ফ্রী রেজিষ্ট্রেশন করে নিজের মত করে প্রফেশন, এডুকেশন ব্যাকগ্রাউন্ড অনুযায়ী শিক্ষিত ও প্রতিষ্ঠিত পাত্র-পাত্রীর প্রোফাইল গুলো দেখে সহজেই শর্ট লিষ্ট করে সরাসরি পাত্র-পাত্রী বা তাঁদের অভিভাবকের সাথে নিজেরাই যোগাযোগ করতে পারবেন এবং তা অতি দ্রুত সময়ের মধ্যেই।

যে ধরনের প্রোফাইল পাবেনঃ ১০০ টি প্রফেশন ক্যাটাগরীর, যেকোন শিক্ষাগত যোগ্যতার, যেকোন ধর্মাবলম্বী – গোত্র কিংবা কাষ্টের, যেকোন বয়সের অবিবাহিত, ডিভোর্স – বিধবা – বিপত্নীক, বাংলাদেশের যেকোন জেলার অধিবাসী, এবং বিশ্বের প্রায় ৫০ টি দেশে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশী।  তাছাড়াও বিয়েরছোঁয়া তে রয়েছে কিছু ষ্পেশাল সার্চ ক্যাটাগরী যেমন – ডিসেবেলীটিস সার্চ (শারীরিক বা স্বাস্থ্যগত প্রতিবন্ধকতা আছে এমন), সিঙ্গেল ফাদার / মাদার সার্চ ( ডিভোর্স কিংবা বিধবা/বিপত্নীক ও সন্তান আছে এমন)।

কেন বিয়েরছোঁয়া তে পাত্র/পাত্রী খুঁজবেনঃ জীবন একটাই  আর একটি সুখী ও সুন্দর জীবনের জন্য চাই একজন সুন্দর মনের মানুষ। অসংখ্য প্রোফাইল দেখে সঠিক সিদ্ধান্তে পৌছাতে নিজেই বিয়েরছোঁয়া তে প্রোফাইল করুন, নিজেই খুঁজুন এবং নিজেরাই পাত্র/পাত্রী কিংবা তাদের অভিভাবকের সাথে সরাসরি যোগাযোগ করুন।  এতে লোক জানাজানির ঝামেলা যেমন নেই তেমনি খরচ ও অনেক কম।

যারা দাম্পত্য জীবনে সেপারেটেড আছেন কিংবা ইতিমধ্যে ডিভোর্স নিয়েছেন, তাদের জন্য বিয়েরছোঁয়া তে রয়েছে – ম্যারিটাল ষ্টেটাস সার্চ ইজি সার্চ  অপশন যেখানে খুব সহজেই ডিভোর্স, বিধবা/বিপত্নীক, সেপারেটেড সহ [সিংগেল ফাদার] , [সিংগেল মাদার] প্রোফাইল গুলো ক্যাটাগরী অনুযায়ি সুবিন্যস্ত রয়েছে।

আপনার রেজিষ্ট্রেশন টি সম্পূর্ন হয়ে গেলে বিয়েরছোঁয়া’র একজন কাষ্টমার সাপোর্ট এক্সিকিউটিভ আপনার প্রদত্ত তথ্যগুলো ফোনে রিভিও করে আপনাকে ৭ দিনের জন্য বিয়েরছোঁয়াতে ফ্রী ট্রায়াল মেম্বারশীপ দিবে ও বিয়েরছোঁয়ার সার্ভিস সম্পর্কে পূর্নাঙ্গ ধারনা দিবে।

৭ দিনের ফ্রী ট্রায়াল মেম্বারশীপে আপনি বিয়েরছোঁয়ার ডাটাবেইজের সবগুলো প্রোফাইল দেখে পছন্দের প্রোফাইল গুলোকে বাছাই (Add To Favorite ) করে পরবর্তীতে আপনার সাধ্য অনুযায়ী মেম্বারশীপ কিনে পাত্র/পাত্রী বা তাদের অভিভাবকের সাথে সরাসরি নিজেরাই যোগাযোগ করে যথাযথ সিদ্ধান্তে পৌছাতে সক্ষম হবেন।

উদ্যোক্তাদের কাজঃ প্রতিদিনের চলার পথে গ্রামবাসী,পরিবার,বন্ধুবান্ধব ও আত্মীয়স্বজনের কাছে নিজের প্রতিষ্ঠান বিয়েরছোঁয়া এর সুযোগ সুবিধা সম্পর্কে প্রচারণা করবে এবং প্রতিদিন ২ জন করে বিবাহ উপযুক্ত পাত্র/পাত্রীর মোবাইল/কম্পিউ ফ্রীতে  “বিয়েরছোঁয়া” এর একাউন্ট করে দিবে।

কোম্পানির লাভঃ “বিয়েরছোঁয়া” থেকে প্রতি মাসে আনুমানিক আয় হবে ১০০ কোটি টাকা । এই টাকার মালিক আপনি,আমি ও আমরা সবাই, যা অকল্পনীয় হলেও “সহযোগী”র মাধ্যমে সম্ভব হওয়া সময়ের দাবি মাত্র। তাই আসুন “সহযোগী”র যোগ্য উদ্যোক্তা হিসেবে নিজেকে প্রমাণ করি এবং আমাদের সময়,মেধা ও শ্রম দিয়ে “সহযোগী”র পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজ করে দেশের মানুষের সেবা করার মাধ্যমে নিজেদের সুন্দর ভবিষ্যত গড়ে তুলি।

প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষনঃ সকল উদ্যোক্তাদের এই প্রজেক্টের প্রশিক্ষণ গ্রহণ করতে হবে। এই প্রজেক্টের মাধ্যমে প্রত্যেক উদ্যোক্তা শিখতে শিখতে আয় করবেন। সকল উদ্যোক্তা প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে প্রশিক্ষিত হলে আমরা আমাদের প্রজেক্টের শতভাগ সাফল্য লাভ করবো। সকল উদ্যোক্তার এই বিষয়ে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করা বাধ্যতামূলক।

উদ্যোক্তার আয়ঃ এই প্রজেক্টটি “সহযোগী”র অন্যতম লাভজনক একটি প্রজেক্ট। কোম্পানির আয়ের শেয়ার পাবে সকল উদ্যেক্তা। এই প্রজেক্ট থেকে একজন গ্রাম উদ্যোক্তা প্রতি মাসে ১০-১৫ হাজার টাকার উপরে আয় করতে সক্ষম হবে।